December 4, 2018

সার্বজনীন সাকরাইন (Our Shakrain)

নেপালে এই দিবসটি মাঘি নামে, থাইল্যান্ডে সংক্রান, লাওসে পি মা লাও, মিয়ানমারে থিং ইয়ান কম্বোডিয়ায় মহাসংক্রান, ইন্ডিয়ায় মকরসংক্রান্তি। 

দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে, বিভিন্ন নামে এই দিবস বা ক্ষণকে ঘিরে উদযাপিত হয় নতুন ফসলের উৎসব। আবশ্যিকভাবেই দেশ ভেদে এর নামের মতোই উৎসবের ধরণেও থাকে পার্থক্য।

মূলত নতুন ফসলকে ঘিরেই এই উৎসব ‘পৌষ পার্বণ’ যেখানে নতুন ধান, খেজুরের গুড় এবং পাটালি দিয়ে বিভিন্ন ধরনের ঐতিহ্যবাহী পিঠা তৈরি করা হয়।

ও হ্যাঁ বাংলাদেশে এর আরেক নাম রয়েছে – সাকরাইন।

পৌষ মাসের শেষদিন বাংলাদেশের পুরান ঢাকায় পৌষসংক্রান্তি বা সাকরাইন সার্বজনীন ঢাকাইয়া উৎসবের রূপ নেয়, যার মূল আকর্ষণ ঘুড়ি উড়ানো। ঘুড়ি উৎসব বাংলাদেশের প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী একটি উৎসব। মুঘল আমল থেকে এই উৎসব পালিত হয়ে আসছে। আমাদের সাকরাইনে ঘুড়ি ও ফানুস উড়িয়ে ও সন্ধ্যায় আতসবাজির মাধ্যমে দিনটি শেষ করা হয়। বাঙালি সংস্কৃতিতে সাকরাইন এদেশের মানুষের বন্ধুত্ব, ঐক্য, সম্প্রীতি এবং একাত্বতার প্রতীক।

The festival is called Maghe in Nepal, Songkran in Thailand, Pi Mai Lao in Laos, Maha Sangkran in Cambodia, Makar Sangkranti in India. Different countries in South Asia celebrate the festival of fresh harvest, under different names. Of course, like the name, the type of celebration also varies from one country to another.

This is basically the festival of ‘Poush Parvan’, where different delicacies are made out of freshly-produces rice and jaggery.

Oh, Bangladesh celebrates it as ‘Shakrain’

The last day of the month ‘Poush’ readily transforms into an occasion of mass celebration in Old Dhaka, kite-flying being its key attraction. This kite-fest is one of the oldest traditional festivals in Bangladesh. It has been celebrated since the Mughal period. In our Sakrain the day ends with flying kites and sky-lantern and fireworks in the evening. In the Bengali cultures, Shakrain symbolizes friendship, religious harmony and unity.

#Shakrain #PuranDhaka #BengaliCulture #SpreadPositivity#PositiveBangladesh #WeArePositiveBangladesh #P2PChallenge